-->

পিক্সেল ৪এ তাদের কানাডার স্টোরে লিক করে দিলো গুগল নিজেই

Google-Pixel-4a-Leaks-Again

গুগলের আপকামিং মিডরেঞ্জার পিক্সেল ৪এ খুব দ্রুতই লঞ্চ হতে চলেছে এবং আমরা এর সমন্ধে অনেক লিক জানতে পেরেছি গত ২ মাস ধরে।

ফোনটি এত বেশি লিক হয়েছে যে এর ডিজাইন এবং অভ্যন্তরীণ স্পেক্স সম্পর্কে আমাদের সবই জানা আছে। যেকোনো মুহূর্তে পিক্সেল ৪এ এর লঞ্চ ডেট বা সারপ্রাইজ অ্যানাউন্সমেন্ট করতে পারে গুগল।

তবে আপনার যদি ফোনটির অফিসিয়াল লুক দেখার প্রয়োজন পড়ে তাহলে গুগল নিজেই এই কাজটি আপনার জন্য করে দিয়েছে– আজ তাদের কানাডার গুগল স্টোরে ভুলবশত পিক্সেল ৪এ ফোনটি লিক করে।

নিচের স্ক্রিনশটটিতে যেমন দেখতে পাচ্ছেন গুগল স্টোরের হোম পেজে নেস্ট ওয়াইফাই দেখানোর কথা ছিল। কিন্তু নেস্ট ওয়াইফাই কোথায় ?

pixel-4a-google-store-screenshot

গুগল স্টোরের স্ক্রিনশটটিতে কেবল দেখা যাচ্ছে  পিক্সেল ৪এ এর প্রথম অফিসিয়াল লুক। তবে মাথা ঘোরানো জিনিষ হচ্ছে যে এই পিক্সেল ৪এ এর ছবিটি বেশ কিছুক্ষন ধরেই গুগল স্টোরের হোমপেজে ছিল। কিন্তু এখন সেটা আর নেই।

তবে স্ক্রিনশটটি একটু ভালোভাবে দেখলে দেখা যাবে যে পিক্সেল ৪এ এর হোম স্ক্রিনে একটা ইন্টারেস্টিং ডেট দেখা যাচ্ছে। যেটা হলো মে ১২। 

এর মানে এই দাঁড়াচ্ছে যে গুগল অরিজিনালি প্ল্যান করেছিল যে ১২ই মে গুগল আইও ইভেন্ট এর মধ্যেই তারা ফোনটি বের করবে। কিন্তু ইভেন্টটি ক্যানসেল হয়ে গেলে সেটা সম্ভব হয়নি।

পিক্সেল ৪এ এর রেন্ডারটি আমাদের প্রাপ্ত সকল লিক এবং রিউমার সমর্থন করছে। ফোনটির কালার হিসেবে দেখা যাচ্ছে ম্যাট ব্ল্যাক এবং পাওয়ার বাটনে মিন্ট গ্রিন কালার করা।

সামনে একটা হোল-পাঞ্চ সেলফি ক্যামেরা দেখা যাচ্ছে এবং পিছনে একটা বর্গাকার ক্যামেরা কাট-আউট রয়েছে। রিয়ারে কেবল একটা ক্যামেরা এবং এলইডি ফ্ল্যাশ দেখা যাচ্ছে।

ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরও ফোনটির ব্যাক সাইড এর মধ্যে অবস্থান করছে।

পিক্সেল ৪এ এর রিউমার্ড স্পেক্স

আমি জোর দিয়ে বলতে পারি যে আপনাদের মধ্যে বেশিরভাগই পিক্সেল ৪এ এর স্পেক্স সম্পর্কে জানেন। তারপরও এখানে ছোট করে বলে দিচ্ছি।

ফোনটিতে থাকবে ৫.৮১-ইঞ্চির ফুল এইচডি প্লাস ওলেড ডিসপ্লে যেটার রিফ্রেশ রেট হবে স্ট্যান্ডার্ড ৬০ হার্টজ। ফোনটিকে অভ্যন্তরে পাওয়ার করবে স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০জি। এই সেম প্রসেসরটি একবছর পুরনো রেডমি কে২০ তেও ব্যাবহার করা হয়েছে।

পিক্সেল ৩এ এর সাকসেসর পিক্সেল ৪এ ফোনটির ব্যাক সাইডে থাকবে ১২.২ মেগা পিক্সেল এর রিয়ার ক্যামেরা এবং সামনের দিকে সেলফি ক্যামেরা হিসেবে কাজ করবে ৮ মেগাপিক্সেল এর সেন্সর।

ফোনটিতে ইকুইপ করা হবে ৩০৮০ মিলি এম্প আওয়ার এর ব্যাটারি যেটা ফাস্ট চার্জ করার জন্য বক্সে থাকবে ১৮ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার এবং এটা চার্জ করবে ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট এর মাধ্যমে।

যদিও এবছর স্মার্টফোনে হেডফোন জ্যাক পাওয়া খুবই দূর্লভ ব্যাপার, গুগল পিস্কেল ৪এ তে পাওয়া যাবে এই বিতর্কিত পোর্টটি। ফোনটিতে ৫জি সাপোর্ট মিলবে না।

আগামী সপ্তাহ গুলোর মধ্যে যদি ফোনটি বের হয়ে যায় তাহলে এর অ্যান্ড্রয়েড ভার্সন হবে কিউ বা ১০। কিন্তু যদি পিক্সেল ৫ এর সাথে বের হয় তাহলে এতে নিঃসন্দেহে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভার্সন প্রোভাইড করা হবে।

অনলাইন রিউমার গুলো বলছে পিক্সেল ৪এ এর প্রাইস নির্ধারণ করা হবে ৩৪৯ ডলার। বাংলাদেশী টাকায় ২৮ থেকে ৩০ হাজার। কিন্তু যদি দেশে আনা হয় তাহলে দাম ৪০ হাজারের কম খুব সম্ভত হয়তো হবে না।

ফোনটি সরাসরি কম্পিট করবে অ্যাপেলের আইফোন এসই ফোনটির সাথে। এবং এর দাম যেহেতু আইফোন এসই থেকে ৫০ ডলার কম তাই এটি সাব ৫০০ ডলার সেগমেন্টে বেস্ট অপশন হিসেবে সবার মন জিততে পারে।

ফোনটি সম্পর্কে আপনার মতামত জানাতে কমেন্ট বক্সে মেসেজ করুন এবং আমাদের ফেসবুক গ্রুপটি জয়েন অবশ্যই করবেন।

Post a Comment

আমরা স্প্যাম ঘৃণা করি!

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো