-->

চলে এলো অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর পাবলিক বেটা: নতুন সব ফিচারস

Android-11-Public-Beta

অবশেষে চলে আসলো অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর প্রথম পাবলিক বেটা। যাদের কাছে পিক্সেল ২ বা তার পরের ফোনগুলো আছে তারা এই বেটা ইনস্টল করতে পারবেন, বেটা প্রোগ্রামটির তালিকাভুক্ত হয়ে। 

তবে মনে রাখবেন যে, এই পাবলিক বেটাতে কিছু বাঘ ভাল্লুক আর অস্থিতিশীলতা থাকতে পারে। আপনি যদি এই বেটা ইনস্টল করার জন্য অনেক বেশি উদগ্রীব না হন তাহলে এটা ইনস্টল করবেন না।

যদিও অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর পাবলিক বেটা এবছরের Google I/O সম্মেলনে আসার কথা ছিল, করোনা মহামারীর কারণে সেটা পিছিয়ে জুন মাসের ৩ তারিখে নির্ধারণ করা হয়। তবে আমেরিকাতে বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলন চলার কারণে গুগল সেটা আবারো পিছিয়ে দেয়।

গুগলকে জুনের ৩ তারিখ এর পাবলিক বেটা পিছিয়ে দেওয়ার কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে তারা বলে, " এখন উৎসবের সময় নয় "। পাবলিক বেটাতে কিছু বাঘ ভাল্লুক থাকলেও অনেক বড়ো কিছু পরিবর্তন এসেছে। আজকের আর্টিকেলে আমরা সেটাই দেখবো।

পাবলিক বেটা কী ?

অনেকেই জানেন পাবলিক বেটার সমন্ধে। তবে যারা জানেন না তাদের কে বলছি। 

পাবলিক বেটা হলো যেকোনো নতুন অ্যান্ড্রয়েড ভার্সনের অফিসিয়াল লঞ্চ এর পূর্বে এর একটি অসম্পূর্ণ ভার্সন এর লঞ্চ, যেখানে থাকে সম্পূর্ণ  ভার্সনের কিছু বড়ো বড়ো ফিচারস যেটা ইউজাররা ইনস্টল করে দেখতে পারেন। তবে সেটা একটা নির্দিষ্ট ডিভাইসে ডাউনলোড করার জন্য উন্মুক্ত থাকে। alert-info

কিছু সময় পূর্বে আমাদের একটা আর্টিকেল বের হয় যেখানে আমরা অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর বেটা লঞ্চ, রিলিজ ডেট এবং নতুন  যেসব ফিচারস  থাকবে সেটা নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেছি।


আরো পড়ুন:

অ্যান্ড্রয়েড ১১ পাবলিক বেটার নতুন সব পরিবর্তন

আমরা তো এতক্ষন অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর পাবলিক বেটা কি সেটা বুঝলাম। আশা করি আমার জটিল ভাষায় আপনি বুঝে গেছেন পাবলিক বেটা কি। তবে এখন আমরা দেখবো অ্যান্ড্রয়েড ১১ সম্পূর্ণ লঞ্চ হলে সেটাতে কি কি ফিচারস থাকবে পাবলিক বেটার অনুসারে। 

সুতরাং, আর কথা বাড়িয়ে লাভ নেই। চলুন আমরা দেখে নেই অ্যান্ড্রয়েড ১১ পাবলিক বেটার নতুন সব পরিবর্তন আর ফিচারস।

১. কনভারসেশনে পরিবর্তন

Android-11-Public-Beta-Conversations
Image Credit: Google

সর্বপ্রথম যেই পরিবর্তন নিয়ে কথা বলবো সেটা হলে কনভারসেশনাল চেঞ্জেস বা পরিবর্তন গুলো। সবাই জানেন অ্যান্ড্রয়েড যেভাবে নোটিফিকেশন ম্যানেজ করে আইওএস সেটা একদমই পারে না।

নোটিফিকেশন এর দিক দিয়ে গুগল সর্বদা অ্যাপেল কে হারিয়ে আসছে তবে এবার গুগল সেটা নতুন মাত্রায় নিতে চলেছে।

আমাদের প্রত্যেকেরই প্রতিদিন অনেক নোটিফিকেশন আসে। তবে আমার মনে হয় না যে সেগুলোর সবগুলো আমাদের জন্য দরকারি।

অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ আপনার কনভারসেশন গুলো হোক সেটা যেকোনো অ্যাপের– ফেসবুক, স্কাইপ, ইনস্টাগ্রাম সেগুলো অন্যান্য নোটিফিকেশন থেকে বেশি প্রাধান্য পাবে।


Android-11-Public-Beta-Conversations
Image Credit: Google

অর্থাৎ, কনভারসেশনের নোটিফিকেশন গুলো নোটিফিকেশন শেডে সবার উপরে থাকবে। তাছাড়া আপনি যেকোনো কনভারসেশনকে বেশি প্রাধান্য দিতে পারবেন ফলে আপনি নোটিফিকেশন মিউট করে রাখলেও সেটা আসবে।

এবার গুগল, অ্যাপেল কে আরেকটা বড়ো ধাক্কা দিবে।

তাছাড়া, অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ কনভারসেশন এর জন্য থাকবে ফ্লোটিং বাবলস। আপনারা সবাই ফেসবুক মেসেঞ্জার এর চ্যাট হিড (Chat Heads) ফিচারটি ব্যাবহার করেছেন।

এই ফিচারটিকে অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ নাম দেওয়া হয়েছে ফ্লোটিং বাবলস। তবে এখানে আপনি যেকোনো মেসেজিং অ্যাপ এ এই সুবিধাটি পাবেন। অস্থির!

২. বেটার মিডিয়া কন্ট্রোল

Android-11-Public-Beta
Image Credit: Pocket-lint

আপনি কি কখনো অ্যান্ড্রয়েড ব্যাবহার করে একাধিক ডিভাইসে মিউজিক শুনতে চেষ্টা করেছেন ? করে থাকলে আপনি জেনে থাকবেন যে এখানে একাধিক ডিভাইসে মিউজিক সুইচ করা অনেক বিরক্তিকর।

তবে অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ আপনি নোটিফিকেশন শেড থেকেই অডিওর আউটপুট ডিভাইসে নির্ধারণ করতে পারবেন সহজে।

তাছাড়া অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ আরো বেশি পরিবর্তন থাকবে মিডিয়া কন্ট্রোল করার ক্ষেত্রে। আপনি যেকোনো মিউজিক সেশন নোটিফিকেশন শেড থেকেই রিজিউম করতে পারবেন। আপনাকে মিউজিক অ্যাপটি ওপেন করে সেই কাজটি করতে হবে না।

আবার গুগল বলেছে যে আপনি একাধিক মিউজিক অ্যাপ এ সুইচ করতে পারবেন তাদের শেষ কখন প্লে করা হয়েছিল তার ভিত্তিতে। জানি বুঝতে পারেননি।

তবে জেনে রাখুন আপনি যদি অডিওবুক এবং মিউজিক দুটোই শুনে থাকেন তাহলে আপনার তাদের মধ্যে সুইচ করতে সহজ হবে।

৩. প্রাইভেসি এখন আরো উন্নত

অ্যান্ড্রয়েড ১০ থেকে গুগল ইউজারদের প্রাইভেসি অনেক গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে। আপনারা যারা অ্যান্ড্রয়েড ১০ ব্যাবহার করছেন তারা জানেন সেখানে আপনি অ্যাপগুলোকে তাদের প্রয়োজনীয় পারমিশন কেবল যখন আপনি অ্যাপটি ব্যাবহার করবেন শুধু মাত্র তখনই দিবেন। এই ফিচারটির নাম– 'Allow Only While Using The App'

তবে এইবার গুগল আপনার প্রাইভেসি আরো এক ধাপ এগিয়ে নেবে যেখানে আপনি এবার অ্যাপ পারমিশন এর জন্য পাবেন একটা নতুন অপশন– 'Only This Time'।

এই ফিচারটি থাকায় আপনার অ্যাপগুলো মাইক্রোফোন, ক্যামেরা আর লোকেশনের পারমিশনে কেবল মাত্র একবার অ্যাকসেস পাবে।

আরো ভালো যেই জিনিসটা, আপনি যদি এমন একটা অ্যাপ ইনস্টল করে পারমিশন দিয়ে থাকেন যেটা আপনি কখনো ব্যাবহার করেন না তাহলে গুগল সেই অ্যাপটির সকল পারমিশন রিসেট করে আপনাকে নোটিফিকেশন দেবে।

কোনো আলতু ফালতু অ্যাপ আপনার ফোনের ক্যামেরা ইউজ করে আপনার ভিডিও ইচ্ছেমত রেকর্ড করতে পারবে না।

৪. স্মার্ট হোমের স্মার্ট কন্ট্রোল

Android-11-Public-Beta
Image Credit: Pocket-lint

এখন আমাদের বেশিরভাগ ডিভাইস গুলো স্মার্ট হচ্ছে। ফলে আপনাকে আলাদা করে আলাদা আলাদা স্মার্ট ডিভাইসের কন্ট্রোল করা লাগে। তবে এবার আপনি অ্যান্ড্রয়েড ১১ এ পাওয়ার বাটনে লংপ্রেস করে আপনার স্মার্ট ডিভাইস গুলো কন্ট্রোল করতে পারবেন।

তাছাড়া পাওয়ার মেনুতে প্রেস করলে আপনার গুগল পেতে (Google Pay) সকল ক্রেডিট কার্ড আর অন্যান্য পেমেন্ট মেথডও দেখাবে।

তাই অ্যান্ড্রয়েড ১১ এবার অনেক বেশি নতুন পরিবর্তন আনবে।

পাবলিক বেটা ইনস্টল করবেন কিভাবে ?

পিক্সেল ইউজাররা সবার প্রথমে অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর পাবলিক বেটা ইনস্টল করতে পারবেন। যাদের কাছে পিক্সেল ২ এবং এর পরের ফোনগুলো আছে তারা এটা ট্রাই করতে পারবেন।

এর জন্য আপনাকে শুধু অ্যান্ড্রয়েড বেটা প্রোগ্রাম পেজ এ গিয়ে আপনার ডিভাইসের জন্য অপট ইন করতে পারবেন। আগামী সপ্তাহ গুলোতে অন্যান্য ফোন নির্মাতার নির্দিষ্ট ফোন গুলোতেও পাবলিক বেটা ইনস্টল করা যাবে।

সাবধান করে দেই আপনাকে এই পাবলিক বেটাতে অনেক বাঘ ভাল্লুক থাকবে তাই আপনাকে অনেক সমস্যায় পড়তে হতে পারে।

তাছাড়া আপনি যদি পাবলিক বেটা থেকে ফিরে যেতে চান তাহলে আপনাকে সম্পূর্ণ ডিভাইস ওয়াইপ করতে হবে মনে সব ডাটা ডিলিট হয়ে যাবে।

মতামত

যেহেতু আর কয়েক মাস পরে অ্যান্ড্রয়েড ১১ সম্পূর্ণভাবে বের হবে, এখনকার মতো পাবলিক বেটা দিয়ে আমরা অ্যান্ড্রয়েড ১১ এর একটা স্বাদ পেয়েছি।

আশা করছি আপনাদের এই আর্টিকেল অনেক ভালো লেগেছে। ভালো লাগলে আপনার বন্ধু আর পরিবারের নিকট পাঠিয়ে দিন। আর সবাই সুস্থ ও সুন্দর থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

1 মন্তব্য

আমরা স্প্যাম ঘৃণা করি!

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

আমরা স্প্যাম ঘৃণা করি!

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো